ভারত থেকে ৩৫ টাকা কেজি দরে সেদ্ধ চাল কিনছে সরকার

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০২১

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

ভারত থেকে ১শ’ ৭৭ কোটি ১০ লাখ ৯০ হাজার টাকা খরচে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল কিনবে সরকার। এ হিসাবে প্রতি কেজি চালের দাম পড়ে ৩৫ টাকা ৪২ পয়সা। বুধবার (২৪ মার্চ) দুপুরে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। 

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জানানো হয়, এ চাল সংগ্রহ করবে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত সংস্থা খাদ্য অধিদপ্তর। আর সরকারকে এই ৫০ হাজার মেট্রিক টন নন-বাসমতি সেদ্ধ চাল সরবরাহ করবে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান মেসার্স পি কে এগ্রি লিংক প্রাইভেট লিমিটেড।

সচিবালয়ে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১০ম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১২তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত ২টি এবং ক্রয় কমিটির অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হয়েছিলো ৬টি প্রস্তাব। ক্রয় কমিটিতে চুড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া ৬টি প্রস্তাব বাস্তবায়নে সরকার মোট ব্যয় করবে ১ হাজার ৪শ’ ৯৩ কোটি ৪৯ লাখ ৪৫ হাজার ৭৭৩ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ব্যয় হবে ৯শ’ ৫৮ কোটি ৯৫ লাখ ৩৯ হাজার ৯১৬ টাকা এবং এডিবি, এএফডি ও ইআইবি ঋণ থেকে প্রকল্প সাহায্য হিসেবে আসবে ৫শ’ ৩৪ কোটি ৫৪ লাখ ৫ হাজার ৮৫৭ টাকা।

অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত কমিটির সভায় অনুমোদন দেয়া হয়েছে পায়রা বন্দরের রাবনাবাদ চ্যানেলের ক্যাপিটাল ও মেইন্টেনেন্স ড্রেজিং কার্যক্রম পিপিপি পদ্ধতির পরিবর্তে সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে বাস্তবায়নের প্রস্তাব। এছাড়া ভারতের ন্যাশনাল সীড করপোরেশন থেকে জেআরও-৫২৪ জাতের ৮০০ মেট্রিক টন পাটবীজ সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে পাট অধিদপ্তরকে।

এছাড়া, সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় ভোলার পরান তালুকদারহাট থেকে চরফ্যাশনের চরমানিকা পর্যন্ত আঞ্চলিক মহাসড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের পূর্ত কাজ যৌথভাবে মইনুদ্দিন বাঁশী লিমিটেড এবং নবারুন ট্রেডার্স লিমিটেডের কাছ থেকে ১২২ কোটি ৬৭ লক্ষ ৭০ হাজার ৫৯০ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সাপোর্ট টু জয়দেবপুর-দেবগ্রাম-ভুলতা-মদনপুর সড়ক (ঢাকা বাইপাস) পিপিপি প্রকল্পের নির্মাণ, পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ তদারকির জন্য স্বতন্ত্র প্রকৌশলী পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল কনসালট্যান্ট অ্যান্ড টেকনোক্রাটস প্রাইভেট লিমিটেড এবং যুক্তরাষ্ট্রের শিলাদিয়া অ্যাসোসিয়েটসকে ৭৯ কোটি ৫৮ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এছাড়া জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সংস্থা পেট্রোবাংলার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের এক্সিলারেট এনার্জির কাছ থেকে ২১৮ কোটি ৭ লাখ ২৯ হাজার ২৩ টাকা ব্যয়ে ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি আমদানির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :