১ এপ্রিল নেওয়া ঋণের সুদ দিতে হবে

প্রকাশিত : ৪ মে ২০২০

যেসব ঋণ গ্রহিতা চলতি বছরেরর ১ এপ্রিল বা তারপরে যেকোনো সময় ঋণ-বিনিয়োগের জন্য ব্যাংক থেকে অর্থ নিয়ে থাকলে তাদের সুদ দিতে হবে।

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবে সব ধরনের ঋণ বিনিয়োগের ওপর আরোপিত-আরোপযোগ্য সুদ-মুনাফা আদায় দুইমাসের জন্য স্থগিত রাখা হলেও তারা এ সুবিধা পাবেন না। এ সুবিধা ৩১ মার্চ ভিত্তিক গ্রাহক পর‌্যায়ে ঋণ-বিনিয়োগ স্থিতির ওপর প্রযোজ্য হবে।

এ বিষয়ে সোমবার (৪ মে) বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসের (কভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট ব্যবসায়িক পরিস্থিতি বিবেচনায় ব্যাংকের সব ধরনের ঋণ/বিনিয়োগের ওপর চলতি বছরের ১ এপ্রিল হতে ৩১ মে পর্যন্ত সময়ে আরোপিত/আরোপযোগ্য সুদ/মুনাফা ‘সুদবিহীন ব্লকড হিসাবে’ স্থানান্তর করতে হবে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ব্লকড হিসাবে স্থানান্তরিত সুদ/মুনাফা সংশ্লিষ্ট ঋণ/বিনিয়োগ গ্রহীতার কাছ হতে আদায় করা যাবে না এবং এরূপ সুদ/মুনাফা ব্যাংকের আয়খাতে স্থানান্তর করা যাবে না। কোনো ব্যাংক এরই মধ্যে সুদ/মুনাফা আয়খাতে স্থানান্তর করা হয়ে থাকলে তা রিভার্স এন্ট্রির মাধ্যমে সমন্বয় করতে হবে। ব্লকড হিসাবে রক্ষিত/রক্ষিতব্য উপরোক্ত সুদ/মুনাফা সমন্বয়ের বিষয়ে পরবর্তীতে অবহিত করা হবে।

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের কারণে বাংলাদেশে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবেলায় দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুনরুজ্জীবিতকরণ ও গতিশীল রাখার লক্ষ্যে ব্যাংকিং ব্যবস্থার মাধ্যমে স্বল্প সুদে ঋণ/বিনিয়োগ সুবিধা দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরনের আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে সরকার।

আপনার মতামত লিখুন :