ভারতে ইলিশ রপ্তানির ‘বিশেষ অনুমতি’ দিয়েছে সরকার

প্রকাশিত : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০

অনলাইন ডেস্ক:

প্রায় দেড় হাজার টন ইলিশ বাংলাদেশ থেকে ভারতে রপ্তানি হতে যাচ্ছে আগামী সপ্তাহে। ব্যবসায়ীদের ইলিশ রপ্তানির ‘বিশেষ অনুমতি’ দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। ২০১২ সাল থেকে ইলিশ রপ্তানি নিষিদ্ধ থাকলেও এবার রপ্তানির বিশেষ অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আজ শুক্রবার ভারতের সংবাদ মাধ্যম ইকোনোমিক টাইমস এ খবর প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতে ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার বিষয়টি গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে নিশ্চিত করেছেন মাছ আমদানিকারক সমিতির সেক্রেটারি সৈয়দ আনোয়ার মকসুদ। তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রায় ২০০ মাছ রপ্তানিকারক ভারতে মাছ রপ্তানির জন্য সরকারের কাছে অনুমতি চেয়েছিল। এর মধ্যে কেবল নয়জনকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ১৪৫০ টন ইলিশ আগামী সপ্তাহের মধ্যেই কলকাতায় পৌঁছাবে। এটি বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ করবে। বাংলাদেশ থেকে যে ইলিশ ভারতে যাবে তা ৮শ গ্রাম থেকে ১২শ গ্রাম ওজনের হবে। আকারের ওপর নির্ভর করে ইলিশের পাইকারি দাম প্রতি কেজি আটশ থেকে ১৪শ টাকা হবে।

দেশের চাহিদা মেটাতে ২০১২ সাল থেকে বাংলাদেশ সরকার ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধ রেখেছে। তবে গত বছর পূজার সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পশ্চিমবঙ্গে ৫০০ টন ইলিশ রপ্তানির ব্যবস্থা করেছিলেন। তবে ব্যবসায়ীদের মতে, রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও প্রতিবছর মৌসুমে হাজার হাজার টন ইলিশ চোরাই পথে পশ্চিমবঙ্গসহ ভারতে পাচার হতো। সে কারণে ইলিশের বাজার মৌসুমেও চাঙ্গা থাকত। এ বছরও পাচার হওয়ার সময় প্রায় ২ হাজার ৮০০ কেজি ইলিশ জব্দ করেছে বিএসএফ। তবে গত এক সপ্তাহ ধরে স্থল সীমান্ত দিয়ে ভারতে ইলিশ ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গেও গত দুই বছরে সেভাবে ইলিশ ধরা পড়ছে না। কয়েকদিন আগে মাত্র ১৫০ টন ইলিশ ধরা পড়ে পশ্চিমবঙ্গে যা সে প্রদেশের মানুষের চাহিদা মেটাতে পারছে না।

আপনার মতামত লিখুন :