ভারতের কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে ৪ মুসলিমের মৃত্যু, যা বললেন মমতা

প্রকাশিত : ১০ এপ্রিল ২০২১

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে ভারতের কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে ৪ মুসলমানের মৃত্যুতে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এ ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকেই দায়ী করে তার পদত্যাগের দাবি জানান।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘‌আমি প্রথম দিন থেকে বলে আসছি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর চক্রান্তে কাজ করছে সিআরপিএফ। আর আজকে প্রমাণ হয়ে গিয়েছে শীতলকুচির ঘটনায়। সিআরপিএফ আমার শত্রু নয়। সিআরপিএফকে বিজেপির হয়ে কাজ করতে হচ্ছে। বিজেপি জেনে গিয়েছে ওরা হারবে। তাই নানারকম অশান্তি ছড়াচ্ছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

মমতা বলেন, আমাদের কর্মীদের গুলি করে মারছে। সাধারণ মানুষকে মারছে। কী অন্যায় করেছিল ওই চারজন?‌ কেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার নামিয়ে আনার নির্দেশ দিচ্ছেন?‌’‌

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, ভোট–চতুর্থীর সকালে রক্তাক্ত হয়েছে কোচবিহার। তার জেরে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের। তাঁদের মধ্যে ৪ মুসলমানের নিহত হয়েছেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে। আর এই ঘটনার পর উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জের সভা থেকে সরাসরি অমিত শাহকে দায়ী করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌গুলির বদলা নিতে হবে ভোট দিয়ে। একটা মারাত্মক ঘটনা ঘটেছে। আর সেই ব্যথ্যা নিয়েই আমি এখানে এসেছি। যা আমাকে মর্মাহত করেছে। সিআরপিএফ গুলি চালিয়ে আজকে চারজন মানুষকে মেরে দিয়েছে।’

আপনার মতামত লিখুন :