বর নিয়ে স্কুটি চালিয়ে শ্বশুরবাড়ি গেলেন নববধূ

প্রকাশিত : ৩ মার্চ ২০২১

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

শরীর ভর্তি সোনার গহনা। মাথায় বাঁধা শোলার মুকুট। পরনে তার লাল-বিয়ের সেনারসি। মাথা ভর্তি সিঁদুর। এক পলকেই ধরে নেয়া যাচ্ছে বিয়ের সাজে কনে কিংবা নববধূ।

নববধু বেশে যে তরুণী মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন তিনি কোনো নকল বেশ ধরেননি। আসলেই নববধূ। বিয়ের পর বরকে নিয়ে স্কুটি চালিয়ে যাচ্ছেন শ্বশুর বাড়িতে।

নববধূর স্কুটি চালানোর এই দৃশ্য ভাইরাল হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেছে বহু মানুষ। তার মধ্যে রয়েছেন স্বয়ং কনের ভাইও। এ নিয়ে খুশি বর ও নববধু দুজনেই।

কনের নাম সুদেষ্ণা সরকার। বরের নাম কৃষ্ণদেব। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী। এ দম্পতির বাড়ি ভারতের শিলিগুড়িতে। সম্প্রতি বিয়ে করেছেন তারা।

সুদেষ্ণার বর কৃষ্ণদেব জানান, ‘সম্বন্ধ করেই বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ের আগেই নিজের ইচ্ছের কথা জানিয়েছিল সুদেষ্ণা। আমিও রাজি হয়ে যাই। বিয়ে শেষ হতেই বিয়ের সাজে বেরিয়ে পড়ি। গোটা বিষয়টা যে এতটা উপভোগ করব, সত্যি-ই ভাবিনি।’

সুদেষ্ণার ভাই সৌত্রিক বসু বলেন, ‘বোন স্কুটি চালাতে ভালবাসে। তাই আমরা কেউ ওর ইচ্ছেতে বাধা দিইনি। এমনকি শ্বশুরবাড়ি থেকেও কোনও বাধা দেয়নি। বরং সকলেই বিষয়টি খুবই মজার ছলে নিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, গত বছরের আগস্টে বাংলাদেশে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে বাইক শোডাউন করে আলোচনায় এসেছিলেন ফারহানা নামের এক গৃহবধূ।

পাবনার কাশিনাথপুরের বাসিন্দা ও টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার হাসনাইন রাফির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন যশোর শহরের সার্কিট হাউজ এলাকার মেয়ে ফারহানা আফরোজ।

১৩ আগস্ট ছিল ফারহানার গায়ে হলুদ। গায়ে হলুদের দিনে শহরজুড়ে বন্ধু-বান্ধব ও সাথীদের নিয়ে বাইক র‌্যালি (মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা) করেন কনে ফারহানা।

ওই শোভাযাত্রার ছবি এ কাজে নিযুক্ত ফটোগ্রাফার তার অনুমতি নিয়েই ফেসবুকে দেন। এরপর ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের ছবি ভাইরাল হয়।

আপনার মতামত লিখুন :